বটিয়াঘাটায় আন্ডর পাস রেল ক্রচিং এর দবিতে মানব বন্ধন

বটিয়াঘাটায় দারোগাভিটা ও ঠিকরাবাদ সড়কে আন্ডার পাস/ওভারপাস রেল ব্রিজের দাবিতে মানব বন্ধন অনুষ্ঠিত

খুলনা বিভাগ

মোঃসোহরাব হোসেন: বটিয়াঘাটায় ৩০ নভেম্বর বেলা ১২ টায়  খুলনা বাসির উদ্যোগে খুলনা টু সাতক্ষীরা মহাসড়কের ঠিকরাবাদ মোড়ে ও গল্লামারী টু বটিয়াঘাটা, নলিয়ান মুখী সড়কের দারোগার ভিটা মোড়ে সড়কের উপর চলমান রেল লাইন ক্রসিং বন্দ রেখে আন্ডারপাস/ ওভারপাস করার দাবিতে খুলনাবাসির ব্যানারে মানব বন্ধন অনুষ্ঠিত হয়েছে।

মানব বন্ধনে আসা সাধারণ মানুষ বলেন,বটিয়াঘাটা ও দাকোপ উপজেলায় অনেক শিল্প প্রতিষ্ঠান গড়ে উঠেছে এ সকল প্রতিষ্ঠানে এবং খুলনা টু সাতক্ষীরা মহাসড়কে প্রতিদিনই বড় বড় যানবাহন চলাচল করে। রেল কর্তৃপক্ষ  তাদের স্বার্থ হাসিল করতে প্রাচিনতম নকশায় গুরুত্বপূর্ণ এই দুটি ব্যস্ততম সড়কের উপর দিয়ে রেল ক্রসিং করছেন মান্দারতার আমলের নকশায়। দিনের পর দিন দূর্ঘটনা লেগে থাকবে এখানে। ভবিষ্যত প্রজন্ম বড় ধরনের বিপদে পড়বে। মানুষ ক্ষতির সম্মুখিন হবে।

যদি মানুষের স্বার্থে রেল লাইন নির্মান করা হয়, তবে কেন সেই সাধারণ মানুষের ক্ষতিতে ফেলতে রেল কর্তৃপক্ষ উঠেপড়ে লেগেছেন। দ্রুত সনাতন নকশা পরিবর্তন করে আধুনিক মানের নকশা করে এখানে আন্ডারপাস বা ওভারপাস নির্মাণ করা হোক। তাহলে জনগন মেনে নিবে।তানাহলে এই রেল ক্রচিং এ প্রতিনিয়ত দূর্ঘটনায় বহু মায়ের বুক খালি হবে।

বক্তারা আরো বলেন,”রেল কর্তৃপক্ষ যদি আগামী এক সপ্তাহের মধ্যে বিষয়টি সমাধান না করে তাহলে আমরা খুলনা বাসী কঠোরভাবে লাগাতার আন্দোলন করে যাবো। খুলনাবাসীর ব্যানারে অনুষ্ঠিত এ মানববন্ধনে উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মোঃআশরাফুল আলম খান বলেন, “জনগণের উপকার করছে সরকার, সে জন্য আমি জনগণের প্রতিনিধি হিসেবে সরকার প্রধান মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আপাকে আন্তরিক ধন্যবাদ জানাই।

তিনি আমাদের ভাগ্যের উন্নয়নের জন্য কাজ করে চলেছেন। কিন্তু রেলের কিছু ভুলের কারনে জনগুরুত্বপূর্ণ এই ঠিকরাবাদ ও দারোগারভিটা মোড়ে মান্দাতা আমলের নিয়মে রেল ক্রসিং না করে আধুনিক এই যুগে আন্ডারপাস বা ওভারপাস নির্মাণ করে কাজটি দ্রুত শেষ করা হোক। বিষয়টি নিয়ে আমি উপজেলা পরিষদের মাসিক মিটিং এ রেজুলেশন করে সমস্যার সমাধান চেয়ে চিঠি দিলেও রেল কর্তৃপক্ষ আমালে নেননি।

তাদের অবহেলায় আমাদের আধুনিক এই যুগে জিবনমান থমকে যাবে। ক্ষতি হবে এ অঞ্চলের মানুষের। দিনের পর দিন মানুষ বড় ধরনের বিপদে পড়বে। যার কারনে জনগণের প্রতিনিধি হিসেবে আমি তাদের ডাকে সাড়া দিয়ে মানববন্ধনে একাত্মতা প্রকাশ করেছি।

“এ সময় উপস্থিত ছিলেন, বটিয়াঘাটা উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও জেলা পরিষদের সদস্য দিলীপ হালদার, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান চঞ্চলা মন্ডল,১নং জলমা ইউনিয়নের চেয়ারম্যান আসিকুজ্জামান আশিক,মিজানুর রহমান মিলন গোলদার, আসাবুর রহমান আসাব, শেখ মোঃ হাদি উজ জামান হাদী,  মানস পাল, অনুপ গোলদার, বিএম মাসুদ রানা, শেখ ওহেদুর রহমান, অহিদুল ইসলাম,

আসলাম তালুকদার,অনুপ গোলদার,অরিন্দম গোলদার, লিয়াকত হাওলাদার, গোলক মন্ডল,প্রকাশ রায়, কার্তিক মেম্বর, তারিকুজ্জামান সুমন, হুমায়ূন কবির, মিজানুর রহমান মিজান, শশাংক রায়, শেখ ইব্রাহিম, সুরোজিত মন্ডল, উদয় রায়, তানভীর রহমান অপু, শিউলী বেগম, সহ এলাকার হাজার হাজার নারী পুরুষ মানুষ এ মানব বন্ধনে অংশগ্রহণ করেন।

Tagged

Leave a Reply