বাঙালি জাতির গর্ব স্বপ্নের পদ্মা সেতু বনাম বিশ্ব রেকর্ড_khulna tv

বাঙালী জাতির স্বপ্নের পদ্মা সেতুর অজানা সব তথ্য বনাম পদ্মা সেতুর বিশ্ব রেকর্ড এর নাড়িভুঁড়ি (পুরা বিশ্ব অবাক)

বাংলাদেশ

পদ্মা সেতুর অজানা সব তথ্য বনাম পদ্মা সেতুর বিশ্ব রেকর্ড এর নাড়িভুঁড়ি!

সারা বিশ্বকে বাংলাদেশ পদ্মা সেতু বানিয়ে তাক লাগিয়ে দিয়েছে। সম্পূর্ণ নিজস্ব অর্থায়নে এত বড় একটি সেতু তৈরি করা বাঙালী জাতির  এক গৌরবের নাম স্বপ্নের পদ্মা সেতু। এই সেতু নির্মাণের পিছনে জড়িয়ে রয়েছে প্রায় ২০টি দেশের মেধা। আজকের এই প্রতিবেদন পদ্মা সেতু বনাম পদ্মা সেতুর বিশ্ব রেকর্ড এর নাড়িভুঁড়ি এবং অজানা-গুরুত্বপূর্ণ তথ্য।

দ্মা সেতুর সূচনাঃ পদ্মা সেতু নির্মাণের সূত্রপাত হয় ২০০৭ সালের ২৮ শে আগস্ট। তৎকালীন তত্ত্বাবধায়ক সরকার পদ্মা সেতু নির্মাণের সিদ্ধান্ত গ্রহণ করে। তখন নির্মাণ ব্যয় ধরা হয়েছিলো ১০ হাজার ১৬১ কোটি টাকা । বিশ্ব ব্যাংক এবং বিভিন্ন দাতা সংস্থার আর্থিক সহযোগিতায় পদ্মা সেতু করতে চাইলেও পদ্মা সেতু করতে চাইলেও তারা বিভিন্ন দুর্নীতির অভিযোগ দিয়ে পিছিয়ে যাই এবং পরবর্তীতে বাংলাদেশ সরকার সিদ্ধান্ত গ্রহণ করে পদ্মা সেতু সম্পূর্ণ দেশীয় অর্থায়নে তৈরি করা হবে। যা ছিল সরকার প্রধান মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার একটি দুঃসাধ্য এবং প্রশংসনীয় পদক্ষেপ।

পদ্মা সেতু তৈরির কাজ শুরু হওয়ার কথা ছিল ২০১১ সালে এবং সেতু নির্মাণের কাজ ২০১৩ সালে শেষ হবে এবং এর যাবতীয় সকল কাজ ও জনসাধারণের চলাচলের জন্য উন্মুক্ত করে দেওয়ার সময় ২০১৫ সাল। কিন্তু বিভিন্ন বাধাবিপত্তির কারণে সঠিক সময়ে পদ্মা সেতু নির্মাণের কাজ শুরু হতে পারেনি। তারপরে  নির্মাণ কাজ শুরু হয় ২০১৪ সালের ৭ ডিসেম্বর। এবং নির্মাণের যাবতীয় সকল কাজ শেষ হয় ২০২২ সালে। ২৫ জুন পদ্মা সেতু ব্যবহারের জন্য উন্মুক্ত করা হয় ।

পদ্মা সেতুর মাধ্যমে মুন্সীগঞ্জ জেলার মাওয়া, মাদারীপুর জেলার শিবচর ও শরীয়তপুর জেলার জাজিরা যুক্ত হবে ফলে দেশের দক্ষিণ-পশ্চিম অংশের সাথে উত্তর-পূর্ব অংশের সংযোগ ঘটবে

পদ্মা সেতু নিয়ে প্রচলিত গুজব :

জুলাই ২০১৯ সালে পদ্মা সেতু নির্মাণ কাজে মানুষের মাথা লাগবে বলে সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যম ফেসবুকে গুজব ছড়ায়। পরে এ ঘটনাকে গুজব ও ভিত্তিহীন উল্লেখ করে ৯ জুলাই ২০১৯ তারিখে সেতু নির্মাণ কর্তৃপক্ষ গণমাধ্যমগুলোতে বিজ্ঞপ্তি পাঠায়।

২৯ মে ২০২২ তারিখে সেতু বিভাগের উন্নয়ন অধিশাখার এক প্রজ্ঞাপনে “পদ্মা সেতু”( Padma Bridge) নামটি চূড়ান্ত করা হয়।

  • পদ্মা সেতু নির্মাণকারী প্রতিষ্ঠানের নাম কী?

চায়না মেজর ব্রিজ ইঞ্জিনিয়ারিং কনস্ট্রাকশন কোম্পানি লিঃ

৭ ডিসেম্বর ২০১৪ ইং

  • পদ্মা সেতু দৈর্ঘ্য কত প্রস্থ কত?

সেতুর (মূল সেতু) দৈর্ঘ্য ৬ দশমিক ১৫ কিলোমিটার। দুই প্রান্তের উড়াল-পথ ৩ দশমিক ৬৮ কিলোমিটার। সব মিলিয়ে সেতুর দৈর্ঘ্য ৯ দশমিক ৮৩ কিলোমিটার এবং প্রস্থ ১৮.১০ মি (৫৯.৪ ফুট)

  • পদ্মা সেতুর বাজেট ২০২২ / পদ্মা সেতুর মোট ব্যয় কত ?

সেতু প্রকল্পের ব্যয় ধরা হয়েছে ৩০ হাজার ১৯৩ কোটি টাকা।

  • পদ্মা সেতু কবে চালু হবে ?

২৫ জুন ২০২২ সকাল ১০টায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বহুল কাঙ্ক্ষিত পদ্মা সেতু উদ্বোধন করবেন ।

  • পদ্মা সেতুর টোল কত?

– ২৮ এপ্রিল ২০২২ পদ্মা সেতুর জন্য টোলের হার প্রস্তাব করে অনুমোদনের জন্য প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কাছে পাঠায় সেতু মন্ত্রণালয়। প্রধানমন্ত্রীর দপ্তরের অনুমোদনের পর তা প্রজ্ঞাপন আকারে প্রকাশ করা হয়।

সরকার নির্ধারিত টোল হার অনুযায়ী, পদ্মা সেতু পারাপারে মোটরসাইকেল ১০০ টাকা, কার ও জিপ ৭৫০, পিক-আপ এক হাজার ২০০ ও মাইক্রোবাসকে এক হাজার ৩০০ টাকা টোল পরিশোধ করতে হবে।

বাসের ক্ষেত্রে ছোট বাস (৩১ আসন) এক হাজার ৪০০ টাকা, মাঝারি বাস (৩২ আসন বা এর বেশি) দুই হাজার, বড় বাসকে (থ্রি-এক্সেল) প্রতি দুই হাজার ৪০০ টাকা টোল দিতে হবে।

এছাড়া ছোট ট্রাককে (৫ টন পর্যন্ত) এক হাজার ৬০০ টাকা, মাঝারি ট্রাকে (৫ টনের বেশি ও সর্বোচ্চ আট টন পর্যন্ত) দুই হাজার ১০০ টাকা, মাঝারি ট্রাক ( ৮ টনের বেশি ও সর্বোচ্চ ১১ টন) দুই হাজার ৮০০ টাকা, ট্রাকে (থ্রি-এক্সেল পর্যন্ত) পাঁচ হাজার ৫০০ টাকা, ট্রেইলার (ফোর-এক্সেল পর্যন্ত) ছয় হাজার টাকা। আর ট্রেইলার (ফোর-এক্সেলের অধিক) ছয় হাজারের সঙ্গে প্রতি এক্সেলের জন্য এক হাজার ৫০০ টাকা যুক্ত হবে।

  • পদ্মা সেতু বিশ্বের কততম সেতু ?

 পদ্মা সেতু বিশ্বের ১২২ তম সেতু ।

– বিশ্বের এগারতম দীর্ঘ পদ্মা সেতু । বিশ্বের দীর্ঘতম সেতু হিসেবে গিনেস বুক অব ওয়ার্ল্ডের রেকর্ডসে নাম রয়েছে চীনের ড্যানইয়াং কুনসান গ্র্যান্ড ব্রিজের। ১শ ৬৪ দশমিক ৮ কিলোমিটার দীর্ঘ এই সেতুর কাজ শেষ হওয়ার এক বছর পর ২০১১ সালে এর রেললাইন নির্মাণের কাজ শুরু হয় এবং নানা পরীক্ষা-নিরীক্ষার পর সেতুটি জনসাধারণের জন্য খুলে দেয়া হয়।

  • পদ্মা সেতুর স্থান কোথায়?

মুন্সিগঞ্জের মাওয়া এবং শরীয়তপুরের জাজিরা পয়েন্টে।

  • পদ্মা সেতুর মোট পিলার সংখ্যা কতটি?

৪২ টি।

  • একটি পিলার থেকে অন্য একটি পিলারের দূরত্ব কত? / প্রতিটি স্প্যানের দৈর্ঘ্য কত?

১৫০ মিটার

  • পদ্মা সেতুর মোট স্প্যান সংখ্যা কতটি?  

৪১ টি।

  • কত তারিখে এবং কত নং পিলারে পদ্মা সেতুর প্রথম স্প্যান বসানো হয়?

২০১৭ সালের ৩০ সেপ্টেম্বর, শরীয়তপুরের জাজিরা প্রান্তে ৩৭ ও ৩৮ নং পিলারের উপর পদ্মা সেতুর প্রথম স্প্যান বসানো হয়। ঐদিন পদ্মা সেতু প্রথম দৃশ্যমান হয়।

  • কত তারিখে পদ্মা সেতুর সর্বশেষ স্প্যান বসানো হয়?

২০২০ সালের ১০ ডিসেম্বর, ১২ ও ১৩ নং পিলারের উপর পদ্মা সেতুর সর্বশেষ স্প্যান বসানো হয়। ঐদিন সম্পূর্ণ সেতুর কাঠামো প্রথম দৃশ্যমান হয়। পদ্মা সেতুর জন্য প্রয়োজনীয় এবং অধিগ্রহণ-কৃত মোট জমির পরিমাণ কত? – প্রায় ৯১৮ হেক্টর।

  • পদ্মা সেতু নিচ দিয়ে নৌযান চলাচলের জন্য কতটুকু ফাঁকা রাখা হয়েছে?

১৮ মিটার(৬০ ফুট)

  • পদ্মা সেতুতে সড়ক পথ কত লেনের?

৪ লেনের ।

২৮৬ টি । এর মধ্যে ২৬২ টি স্টিল ও ২৪ টি কংক্রিটের। প্রতিটি পাইলের পরিধি ৩ মিটার। এগুলো ১১৪-১২০ মিটার মাটির নিচে আছে।

  • কবে বিশ্ব ব্যাংকের সাথে পদ্মা সেতুর ঋণের চুক্তি এবং কখন তা বাতিল করে?

২৮ এপ্রিল ২০১১ ইং ঋণের চুক্তি হয় (১২০ কোটি ডলারের) এবং ৩০ জুন ২০১২ ইং চুক্তি বাতিল হয়।

মোঃ শফিকুল ইসলাম

  • পদ্মা সেতুর স্প্যান বসানোর কাজে কোন ক্রেন ব্যবহার করা হয়েছে?

তিয়ান-ই

  • পদ্মা সেতুর নকশা করেন কে ?

AECOM এর নকশায় হবার কথা ছিলো । পরবর্তীতে ” বুয়েট” এবং COWI ব্রিটিশ পরামর্শক প্রতিষ্ঠানের পরামর্শে হয়।

  • পদ্মা সেতু ঢাকার সাথে কতটি জেলার সংযোগ স্থাপন করবে?

দক্ষিণাঞ্চলের ২৯ টি জেলার ।

  • কাউই (COWI) কী?

ব্রিটিশ পরামর্শক প্রতিষ্ঠান ( পদ্মা সেতুর পাইল সংক্রান্ত গুরুত্বপূর্ণ পরামর্শ দিয়ে থাকে )।

  • কারা পদ্মা সেতু প্রকল্পটি তত্ত্বাবধানের কাজ করছে?

বাংলাদেশ সেনাবাহিনী ও বুয়েট এবং কোরিয়া এক্সপ্রেসওয়ে কর্পোরেশন(কেইসি-KEC)

১২ কি. মি.। নদী-শাসনে চুক্তি হয়েছে চীনের সিনোহাইড্রো কর্পোরেশনের সঙ্গে। নদী-শাসনে ব্যয় হয়েছে ৮ হাজার ৭০৭ কোটি ৮১ লাখ টাকা।

Khulna TV

Tagged

1 thought on “বাঙালী জাতির স্বপ্নের পদ্মা সেতুর অজানা সব তথ্য বনাম পদ্মা সেতুর বিশ্ব রেকর্ড এর নাড়িভুঁড়ি (পুরা বিশ্ব অবাক)

Leave a Reply