নিষ্ঠুর রাজনীতি কেড়ে নিয়েছে কয়রা ছাত্রলীগ সাধারন সম্পাদক রাসেলের প্রাণ!

বাংলাদেশ

কয়রা(খুলনা)প্রতিনিধিঃ খুলনার কয়রার বাগালী ইউনিয়ের বাইলহারানিয়া গ্রামের বে সীন মীম আলিম মাদ্রাসার পাশে বাতিকাটা খালের উপর নির্মাধীন একটি ব্রিজের কাজকে কেন্দ্র করে ১ মার্চ রবিবার বেলা ৪টায় ছাত্রলীগের সাধারন সম্পাদক মোঃ হাদিউজ্জামান রাসেলের উপর সুপরিকল্পিত হামলা চালিয়েছে পতিপক্ষ সন্ত্রাসীরা , এঘটনায় উভয় পক্ষের ৮ জন আহত হয়।

এলাকাবাসী সূত্রে জানাযায়, বাইলহারানিয়া গ্রামের আলিম মাদ্রাসার পাশে বাতিকাটা খালের উপর নির্মাধীন ব্রিজের ঢালাই কাজ চলাকালে বেলা ১১টায় বাগালী ইউনিয়ন আওয়ামী আওয়ামীগের সভাপতি মোঃ আঃ সাত্তার সানা নেতৃত্বে হাফিজুর রহমানের গং দের সাথে স্থান টিক করা নিয়ে বাধা সৃষ্টি করলে শ্রমিকদের সাথে কথা কাটাকাটির সৃষ্টি হয়।এ পর্যায়ে মীমাংসা হয়। বিকালে এঘটনার পুনরাবৃত্তি হলে বেলা ৪ টায় ঘটনা স্থানে ছাত্রলীগ সম্পাদক উভয় পক্ষকে সাথে মীমাংসা ও বুঝাতে চেষ্টা করলে এক পর্যায়ে ক্ষিপ্ত থাকা তুহিন ও তার ভাইয়েরা মিলে আঃ সাত্তার সানার নেতৃত্বে দেশিয় অস্ত্র হাতুডী,দা,রড নিয়ে, তার ওপর এলোপাতাড়ী সন্ত্রাসী হামলা চালায়। এতে ছাত্রলীগ সাধারণ সম্পাদক হাদিউজ্জামান রাসেলসহ তার সাথে থাকা ছাত্রলীগ ৬ জন কর্মি গুরুত্বর আহন হন।

তাৎক্ষনিক স্থানিয়রা এসে গুরুতর আহত অবস্থার ছাত্রলীগের সাধারন সম্পদক হাদিউজ্জামান রাসেল সহ (২৮), ইয়াছিন আরাফাত (১৯) রাজু (২২), আব্দুল্লাহ (২৯), আবুল হাসান (২০), সেলিম (৩২) কয়রা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করলে প্রাথমিক চিকিৎসা দেওয়া হলে তাদের অবস্থার অবনতি হলে উন্নত চিকিৎসার জন্য (খুমেক) খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরন করেন ।

সেখান থেকে আসংখ্যা জনক অবস্থায় ছাত্রলীগ সম্পাদককে গাজী মেডিকেলে নিবিড় পর্যবেক্ষণ কক্ষে (আইসিইউ) রেখে চিকিৎসা দেয়া হয়। পরে উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকায় প্রেরণ করা হয়। ২ মার্চ সকাল ৬.৫০মিনিটে সে মৃত্যু বরণ করেন। এ ব্যাপারে আঃ সাত্তার সানা সাথে যোগাযোগ করতে চাইলে তার ফোন বন্ধ পাওয়া যায়।

Staff Report: khulnatv

Tagged

Leave a Reply