ডেসটিনির ব্যবস্থাপনা পরিচালক (এমডি) মো. রফিকুল আমিনের মামলার চুড়ান্ত নিষ্পত্তি করে জামিন আদেশ দিয়েছে হাইকোর্ট। khulna tv

দুদকের মামলায় জামিন ডেসটিনির ব্যবস্থাপনা পরিচালক (এমডি) মো: রফিকুল আমিনের

বাংলাদেশ

দুদকের মামলায় জামিন ডেসটিনির ব্যবস্থাপনা পরিচালক (এমডি) মো: রফিকুল আমিনের

দুদকের দায়ের করা মামলায় ১০/১০/২০১৮ইং তারিখ বুধবার ডেসটিনির ব্যবস্থাপনা পরিচালক (এমডি) মো. রফিকুল আমিনের মামলার চুড়ান্ত নিষ্পত্তি করে জামিন আদেশ দিয়েছে হাইকোর্ট।

ফলে সারাদেশে আনন্দে ভাসছে ডেসটিনির  ৪৫ লক্ষ ক্রেতা পরিবেশক ও বিনিযোগকারী। আবার আশার আলো দেখছে লক্ষ লক্ষ বেকার যুবক যাদের কর্মে সুন্দর ভাবে বেঁচে থাকবে তাদের পরিবার ও দেশের কোটি জনতা। অভিনন্দন ও শুভেচ্ছা বর্তমান সরকার ও বিচার বিভাগীয় দায়িত্বশীল সকলের প্রতি, ডেসটিনি গ্রুপের দুই থেকে আড়াই কোটি মানুষের প্রানের চাওয়া জীবন জীবিকা নির্ভর ডেসটিনি গ্রুপের মামলার বিষয়ে গুরুত্ব সহকারে আমলে নিয়ে একটি মামলায় ডেসটিনির ব্যবস্থাপনা পরিচালক মোঃরফিকুল আমিন কে জামিন মনজুর করার জন্য। ডেসটিনি পরিবার বিচার বিভাগের উপর আস্থা আছে। আশা করি ডেসটিনি গ্রুপের সকল মামলা দূত নিস্পতি করে সকল মামলায় মোঃ হোসাইন ও মোঃরফিকুল আমিন কে জামিন মনজুর করে কোটি মানুষের কাজের সুযোগ করে দিবেন।এবং ডেসটিনি গ্রুপে বিনিযোগ এর নিরাপত্তা নিশ্চিত করার সুযোগ তৈরি করে মানবিক ও আর্থীক বিপজ্জয় থেকে রক্ষা করুন। ডেসটিনি পরিবারের দুই থেকে আড়াই কোটি মানুষ আপনাদের এই সহানুভূতি চিরদিন মনে রাখবে। বিশ্বাস ও আস্থা নিয়ে আপনাদের সকল কাজে সহযোগিতা করবে।

উল্লেখ্য : –

জ্ঞাত আয়-বহির্ভূত সম্পদ অর্জনের দায়ে দুদকের দায়ের করা মামলায় ডেসটিনির ব্যবস্থাপনা পরিচালক (এমডি) মো. রফিকুল আমিনকে জামিন দিয়েছেন হাইকোর্ট। তার জামিন প্রশ্নে জারি করা রুলের চূড়ান্ত নিষ্পত্তি করে অদ্য বুধবার (১০/১০/২০১৮ইং) বিচারপতি মো. নজরুল ইসলাম তালুকদার ও বিচারপতি কে এম হাফিজুল আলমের সমন্বয়ে গঠিত দ্বৈত বেঞ্চ এ আদেশ দেন।

আদালতে আসামিপক্ষে শুনানি করেন অ্যাডভোকেট এম. মইনুল ইসলাম। দুদকের পক্ষে ছিলেন অ্যাডভোকেট মো. খুরশীদ আলম খান। রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল রোনা নাহরিন, এ কে এম আমিন উদ্দিন মানিক ও সহকারী অ্যাটর্নি জেনারেল হেলেনা বেগম চায়না।

এর আগে জ্ঞাতআয়-বহির্ভূত ১৮ কোটি ২ লাখ ২৯ হাজার ৩২৩ টাকার সম্পদ অর্জনের বিবরণী জমা না দেওয়ায় ২০১৬ সালের ৮ সেপ্টেম্বর রমনা মডেল থানায় রফিকুল আমিনের বিরুদ্ধে মামলা করে দুদক। এরপর ২০১৭ সালের ৬ জুন ঢাকার বিশেষ জজ আদালত-৮-এ মামলার চার্জশিট দাখিল করা হয়। এরপর এই বছরের ১২ মার্চ তার বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠন করে আদালত। ২০১৬ সালের ২ নভেম্বর এ মামলায় তাকে গ্রেফতার দেখানো হয়।

পরে মামলাটিতে জামিন চেয়ে হাইকোর্টে আবেদন করেন রফিকুল আমিনের আইনজীবীরা। যার পরিপ্রেক্ষিতে গত বছরের ১২ মার্চ রফিকুল আমিনকে কেন জামিন দেওয়া হবে না, তা জানতে চেয়ে রুল জারি করেন হাইকোর্ট। বুধবার সেই রুল যথাযথ ঘোষণা করে এই মামলায় রফিকুলের জামিন মঞ্জুর করেন আদালত। তবে অন্য মামলায় জামিন না থাকায় এখনই তিনি কারামুক্তি হতে পারছেন না বলে জানিয়েছেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল এ কে এম আমিন উদ্দিন মানিক।

সূত্র : খুলনা টিভি 

Tagged

Leave a Reply