দাকোপে " শিশুদের জন্য আমরা'র পক্ষথেকে "আমাদের স্কুল" এর শুভ উদ্বোধন!

দাকোপে ” শিশুদের জন্য আমরা’র পক্ষথেকে “আমাদের স্কুল” এর শুভ উদ্বোধন!

বাংলাদেশ

দাকোপে ” শিশুদের জন্য আমরা’র পক্ষথেকে “আমাদের স্কুল” এর শুভ উদ্বোধন!

দাকোপে সুবিধা বন্চিত শিশুদের মাঝে শিক্ষার আলো ছড়িয়ে দিতে সংগঠনটি ঝরে পড়া শিশুদের বিনা মূল্যে শিক্ষা উপকরন প্রদান ও পাঠ দানের ব্যবস্হা করেব। ইতোপূর্বে সংগঠনটি শীতবস্ত্র বিতরন, রোজায় অসহায় বৃদ্ধদের জন্য ইফতার সামগ্রী, শিশুদের জন্য ঈদের জামা-কাপড়, কালীপূজায় হিন্দু সম্প্রদায়ের মাঝে ধুতি,শাড়ি,শার্ট প্যান্ট বিতরন করে। মানবসেবার ধারাবাহিকতায় এবার তারা ব্যতিক্রমধর্মী উদ্দোগ নিয়ে সুবিধা বন্চিত শিশুদের জন্য “আমাদের স্কুল উদ্বোধন করল।

উদ্বোধন করেন- ৫ নং সুতারখালি ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মাছুম আলী ফকির, প্রধান উপদেষ্টা আজগর হোসেন সাব্বির, সভাপতিত্ব করেন – সংগঠনের সভাপতি, বেলাল হোসেন, সন্চালনায় ছিলেন – সাধারন সম্পাদক- শেখ ফারুক। সাংগঠনিক সম্পাদক- জব্বার মুহাম্মদ, উপস্তিত ছিলেন-আমিরুজ্জামান সোহাগ শরিফুল ইসলাম অনিমেষ সরদার,রাসেল ফকির উমা মন্ডল,শামিনুর রহমান,জাহিদ রুমি,গাজি রাজু,মানব মন্ডল,প্রসাদ মিস্ত্রি, সেলিম রেজা,মিজানুর রহমান রাব্বি, নাজমুল হাসান,ইসার রহমান,ডাব্লিউ সরদার ।

উল্লেখ্য, সুন্দরবনের উপকূলীয় অঞ্চল খুলনার দাকোপ উপজেলার শিবসা ও সুতারখালী নদীর তীর। এ তীরে বসবাসকারী ভাসমান জনপদের নাম কালাবগীর ঝুলন্তপাড়া। জীবন জোয়ারে ভাসমান খুলনার এ উপকূলবাসী। উপকূলীয় এ অঞ্চলটিতে ঘূর্ণিঝড়, নদী ভাঙ্গন, জলোচ্ছ্বাস নানামুখী প্রাকৃতিক বিপর্যয়ের সাথে যুদ্ধ করে বেঁচে থাকে সাধারণ মানুষ। কালাবগীর ঝুলন্তপাড়ায় প্রায় ২০০টি ঝুলন্ত ঘরে বাস করে ৫ শতাধিক দরিদ্র মানুষ। দারিদ্রতার টানাপোড়নে এ অঞ্চলের শিশুরা শিক্ষার সুযোগ থেকে বঞ্চিত হয় প্রতিনিয়ত। অস্বচ্ছল পরিবারের এসব শিশুরাও স্বপ্ন দেখে একদিন তারা হবে ডাক্তার, ইঞ্জিনিয়ার, উকিল বা শিক্ষক।

তারই ধারাবাহিকতায় এবং তাদের স্বপ্ন পূরণে ব্যতিক্রমধর্মী উদ্যোগ নিয়েই সুবিধা বঞ্চিত শিশুদের জন্য ‘আমাদের স্কুল’ উদ্বোধন করা হয়েছে। শিশুদের মাঝে শিক্ষার আলো ছড়িয়ে দিতে সংগঠনটি ঝরে পড়া শিশুদের বিনামূল্যে শিক্ষা উপকরণ প্রদান ও পাঠ দানের ব্যবস্থা করা হয়েছে। আলোকিত দেশ গঠনে স্বেচ্ছাশ্রমের ভিত্তিতে একঝাঁক উদ্যমী তরুণ এ শিক্ষা কার্যক্রমের দায়িত্ব নিয়েছে।

স্টাফ রিপোর্ট : সাব্বির হোসেন ( খুলনা টিভি )

Tagged

Leave a Reply