নড়াইলে চায়ের দোকানে সংঘর্ষে আহত ১৫! বিয়ের গাড়ি ভাড়া নিয়ে দ্বন্দ

নড়াইলে চায়ের দোকানে সংঘর্ষে আহত ১৫! বিয়ের গাড়ি ভাড়া নিয়ে দ্বন্দ

খুলনা বিভাগ

খন্দকার সাইফুল নড়াইলঃ নড়াইল সদর উপজেলার ভদ্রবিলা ইউনিয়নের বাগডাঙ্গা গ্রামে তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে দুপক্ষের সংঘর্ষে তিনজন নারীসহ অন্তত ১৫ জন আহত হয়েছেন। রবিবার (৩০ অক্টোবর) সকাল ৮টার দিকে এ সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। আহতদের নড়াইল সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

আহত ও তাদের স্বজনরা জানান, গত ২৮ অক্টোবর বাগডাঙ্গা গ্রামের সিদ্দিক মোল্যার ছেলে নয়ন মোল্যার বিয়ের বরযাত্রী থেকে ফেরার সময় তুচ্ছ ঘটনা নিয়ে বিরোধের সৃষ্টি হয়। এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে ওই গ্রামের মোল্যা বংশ ও মিনে বংশের মধ্যে ক্ষোভ বিরাজ করছিল। ওই গ্রামের মনির মিনা জানান, শুক্রবার সকালে বাগডাঙ্গা খেয়াঘাটে চা পানের জন্য তাদের মিনে বংশের লোকজন গেলে পরিকল্পিতভাবে একই পাড়ার মোল্যা বংশের লোকজন লাঠিসোঁটা নিয়ে হামলা চালায়।

এ সময় উভয় পক্ষের মধ্যে মারামারি শুরু হয়। ঠেকাতে গিয়ে তিনজন নারীসহ আহত হয় ১৫ জন। সদর হাসপাতাল সূত্রে জানা গেছে সংঘর্ষে আহত হয়ে শিয়াবুল মিনা (২২), বাবলু মিনা (৩৬), রজিবুল মিনা (২৮), বিল্লাল মোল্যার স্ত্রী ঝর্না বেগম (৪৫), হোসেন মিনা (৪৫), মুসা মিনার স্ত্রী চম্পা বেগম (৫০), রাব্বি মোল্যা (২৫), বিল্লালের স্ত্রী নাসরিন বেগম (৪৫), আলামিন মোল্যা (৫০), রানা মিনা (২৮), সামিউল মিনা (২৩), সজীব মিনা (২৩) হাসপাতালে চিকিৎসা নিয়েছেন। নড়াইল সদর হাসপাতালের জরুরি বিভাগের চিকিৎসক শরীফ মো. হাসান ফেরদৌস জানান, গুরুতর আহতদের হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। এ ছাড়া অন্যান্যদের প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে ছেড়ে দেয়া হয়েছে।

নড়াইল সদর থানার ওসি মাহমুদুর রহমান জানান, বিয়ের গাড়ি ভাড়া নিয়ে সৃষ্ট বিরোধকে কেন্দ্র করে গ্রামের দুটি বংশের মধ্যে মারামারির ঘটনা ঘটেছে। পুলিশ হাসপাতালে গিয়ে আহতদের সঙ্গে কথা বলেছেন। এ ব্যাপারে অভিযোগ পেলে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

Khulna TV

Tagged

Leave a Reply