গরম না ঠাণ্ডা কোন পানিতে গোসল করবেন জেনে নিন !

গরম না ঠাণ্ডা কোন পানিতে গোসল করবেন জেনে নিন !

লাইফ স্টাইল

গরম না ঠাণ্ডা কোন পানিতে গোসল করবেন জেনে নিন !

শীতকালে গোসল করা নিয়ে আমরা সবাই কম বেশি আতংকে থাকি পানি অতিরিক্ত পরিমাণ ঠাণ্ডা হওয়ায় এই আতংকের সৃষ্টি হয় ফলে অনেকেই নিয়মিত গোসল করা থেকেও বিরত থাকেন আবার অনেকে গরম পানি ব্যবহার করে গোসল সেরে নেন তবে গরম পানি আপনার শরীরের জনয কতটুকু ভালো বা খারাপ তা কি আপনি জানেন? আমরা অনেকেই জানি না

গরমের সময় আমরা ঠাণ্ডা পানি দিয়ে গোসল করতে পছন্দ করি। আবার শীতের সময় হালকা গরম পানি দিয়ে। তো কোনটি ভালো? গরম ও ঠাণ্ডা দু’ ধরনের পানিতেই গোসলের কিছু উপকার রয়েছে। গোসলের পর শিথিল বোধ করতে চাইলে গরম পানি দিয়ে গোসল করুন। ক্লান্ত হয়ে বাড়ি ফেরার পর গরম পানির গোসল ক্লান্তিভাব কাটাবে। এ ছাড়া গরম পানির গোসল অবসন্ন ও ক্লান্তিভাব কাটায়, বিশেষ করে বিকেলে।

মাথাব্যথা থাকলে গরম পানি দিয়ে গোসল করুন। এটি সাময়িকভাবে মাথাব্যথা কমাবে। ঘুম থেকে ওঠার পর মুখ ফোলা লাগছে? মুখ ফোলা ভাব কমাতে গরম পানির গোসল করতে পারেন। কোনো নির্দিষ্ট কারণ ছাড়াই উদ্বিগ্ন লাগলে গরম পানি দিয়ে গোসল করে নিন। এতে শরীর শিথিল থাকবে। গরম পানির গোসল নাকের সর্দি কমায়। গরম পানির গোসল শরীরের বিষাক্ত পদার্থ দূর করে। গরম পানির গোসল ত্বকের রোমকূপগুলো খুলে দেয়।

এতে শরীর ভালোভাবে পরিষ্কার হয়। অন্যদিকে ঠাণ্ডা পানিতে গোসল রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়াতে কাজ করে। ঠাণ্ডা পানিতে গোসল করলে শরীর থেকে অ্যান্টিডিপ্রেশন হরমোন নিঃসরণ হয়। এতে ভালো অনুভূতি হয়। বিপাক ভালো রাখতে কাজ করে। ঠাণ্ডা পানির গোসল আপনাকে সতেজ করবে, বিশেষ করে সকালে। ঠাণ্ডা পানির গোসল চুলপড়া প্রতিরোধ করে এবং ত্বক ভালো রাখে।

Sabbir

Tagged

Leave a Reply