ক্লাস ফাঁকি ও রাস্তাঘাটে গবাদি পশু ছেড়ে দিলে ব্যবস্থা নেওয়া হবে

ক্লাস ফাঁকি ও রাস্তাঘাটে গবাদি পশু ছেড়ে দিলে ব্যবস্থা -গোপালগঞ্জ জেলা প্রশাসক

খুলনা বিভাগ

গোপালগঞ্জের বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে ক্লাস চলাকালীন সময়ে যদি কোন শিক্ষার্থী (ছাত্র -ছাত্রী) ক্লাস ফাঁকি দিয়ে বাহিরে ঘোরাফেরা বা আড্ডা- বাজি করে তাহলে তাদেরকে আইনের আওতায় নেওয়া, শহরের পৌর এলাকার বিভিন্ন রাস্তাঘাটে যত্রতত্র গবাদিপশু (গরু-ছাগল- ভেড়া) ছেড়ে দিলে সেই পশুগুলোকে ধরে পৌর সভার খোয়ারে দেওয়া হবে। সেখান থেকে গরু প্রতি ১৫’শত টাকা জরিমানা দিয়ে প্রকৃত মালিককে ছাড়িয়ে নিতে হবে।

এসকল গবাদি পশু অবাধে রাস্তাঘাটে চলাফেরা করায় হরহামেশা ঘটছে সড়ক দুর্ঘটনা সেই সঙ্গে নষ্ট হচ্ছে পরিবেশ। শহরের ময়লা আবর্জনা সংগ্রহ করা কেন্দ্রগুলোয় ওই গবাদিপশু গুলো গিয়ে সেখানে সংরক্ষিত ময়লা আবর্জনা খেয়ে একদিকে যেমন দুর্গন্ধ ছড়াচ্ছে তেমনি পরিবেশের বিপর্যয় ঘটছে। জন সচেতনতায় শহরে মাইকিং করার নির্দেশ দেন জেলা প্রশাসক। এছাড়া শহরের ধূলোবালি নিরসনে পৌর কর্তৃপক্ষকে দ্রুত কার্যকর ব্যবস্থা গ্রহণে নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে।

জেলার বিভিন্ন অবৈধ ইটভাটা চিহ্নিতকরণ এবং বিভিন্ন ইটভাটায় জ্বালানি হিসেবে কাঠ পোড়ানো হচ্ছে কি না? বিভিন্ন ক্লিনিক ও ডায়াগনস্টিক সেন্টার এবং ফার্মেসিতে মেয়াদোত্তীর্ণ ওষুধ বিক্রি করছে কিনা? পবিত্র মাহে রমজান উপলক্ষে জেলার বিভিন্ন হোটেল রেস্তোরায় স্বাস্থ্যসম্মত খাবার তৈরি ও বিক্রি হচ্ছে কি না তা পর্যবেক্ষণ করতে ভ্রাম্যমাণ আদালতের অভিযান জোরদার করতে এবং বাজারে নিত্যপণ্যের দ্রব্যে নির্ধারিত মূল্যের চেয়ে অধিক মূল্য নিচ্ছে কিনা? তা মনিটর করতে জেলা ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তর ও জেলা মার্কেটিং কর্মকর্তাকে প্রয়োজনীয় দিকনির্দেশনা দেন জেলা আইনশৃঙ্খলা কমিটির সভাপতি ও জেলা ম্যাজিস্ট্রেট শাহিদা সুলতানা।

রোববার (১০ এপ্রিল) বেলা সাড়ে ১১ টায় গোপালগঞ্জ জেলা প্রশাসকের সম্মেলন কক্ষ “স্বচ্ছতা’য় জেলা প্রশাসনের আয়োজনে জেলা আইনশৃঙ্খলা কমিটির মাসিক সভায় এসব কথা বলেন। আইন-শৃঙ্খলা রক্ষায় এবং সড়ক দুর্ঘটনার কারণ ও তা নিরসনে প্রতিটি উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তাকে প্রয়োজনীয় দিক-নির্দেশনা দেন। এছাড়াও সরকারি জমি দখল ও অবৈধভাবে বালু উত্তোলনকারীদের বিরুদ্ধে সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তাদের কঠোর হওয়ার নির্দেশনা দেন তিনি।

অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট (এডিএম) মো. ইকবাল হোসেনের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিত জেলা আইনশৃঙ্খলা কমিটির মাসিক সভায় অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর সার্কেল) মো. খায়রুল আলম, জেলা সিভিল সার্জন ডা. নিয়াজ মোহাম্মদ, জেলা আওয়ামী লীগের সিনিয়র সহ-সভাপতি শেখ মোহাম্মদ রুহুল আমিন ।

Tagged

Leave a Reply