ইলিশ মাছের দাম বাড়ছে পহেলা বৈশাখকে সামনে রেখে_khulnatv

ইলিশ মাছের দাম বাড়ছে পহেলা বৈশাখকে সামনে রেখে

কৃষি ও খাদ্য

ইলিশ মাছের দাম বাড়ছে পহেলা বৈশাখকে সামনে রেখে

পহেলা বৈশাখ সামনে রেখে ভোক্তাদের দৃষ্টি এখন ইলিশ মাছের দিকে। এ কারণে সপ্তাহখানেক আগেই চড়া ইলিশ মাছের দাম। মাছের পাশাপাশি ব্রয়লার মুরগির দাম বেড়েছে। গরু ও খাসির মাংস আগের দামে স্থিতিশীল রয়েছে। এছাড়া চাল, ডাল, চিনি, ভোজ্যতেল, আটাসহ অন্যান্য নিত্যপণ্যের দাম অপরিবর্তিত রয়েছে।

শুক্রবার রাজধানীর কাওরান বাজার, কাপ্তান বাজার, নিউমার্কেট ও মোহাম্মদপুর টাউন হল মার্কেট ঘুরে নিত্যপণ্যের দরদামের এসব তথ্য পাওয়া গেছে।

এদিকে, বৈশাখ সামনে রেখে ইলিশ মাছের দাম বেড়ে যাচ্ছে। গত কয়েক সপ্তাহ থেকেই ইলিশ মাছের দাম চড়া। প্রতিকেজি ইলিশ মাছ বিক্রি হচ্ছে দেড় থেকে ১৮শ’ টাকা। এছাড়া ৫০০ গ্রাম ওজনের প্রতিজোড়া ইলিশ মাছ বিক্রি হচ্ছে ১ হাজার থেকে ১২শ’ টাকায়। বিক্রেতারা বলছেন, চাহিদা বেড়ে যাওয়ায় এ মাছটির দাম বেড়ে যাচ্ছে। বৈশাখ সামনে রেখে তারা আরও বেশি দাম বাড়ার কথা জানিয়েছেন। তবে ভোক্তারা বলছেন, এ বছর বাজারে পর্যাপ্ত ইলিশের সরবরাহ রয়েছে। এ কারণে বৈশাখ সামনে রেখে এই মাছটির দাম বাড়া ঠিক নয়। কিছু অসাধু ব্যবসায়ীর কারসাজির কারণে বাজারে ইলিশ মাছের দাম বেড়ে যাচ্ছে বলে তাদের অভিযোগ রয়েছে।

আরো পড়ুন: দেশের শিল্প উৎপাদন নারীদের অংশগ্রহণ বাড়াতে হবে: শিল্প মন্ত্রী

কাওরান বাজারের ইলিশ মাছ বিক্রেতা সামসু মিয়া জনকণ্ঠকে বলেন, পাইকারি বাজারে মাছের দাম বেশি। এ কারণে খুচরায় দাম বেড়ে গেছে। প্রতিবছর বৈশাখ মাসের আগেই ইলিশ মাছের দাম বেড়ে যায়। ভোক্তাদের বাড়তি চাহিদার কারণেও দাম বাড়ে। তবে বাজারে ইলিশ মাছের দাম বাড়লেও দেশীয় জাতীয় রুই, কাতলা, মৃগেল, চিংড়ি, শিং, টাকি মলা, কাচকিসহ অন্যান্য মাছের দাম স্থিতিশীল রয়েছে।

এছাড়া ৫ টাকা দাম বেড়ে প্রতিকেজি ব্রয়লার মুরগি বিক্রি হচ্ছে ১৩৫-১৪৫ টাকা। পেঁয়াজ আমদানি ৩০ এবং দেশীটি ৩৫-৩০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে।

বাজারঘুরে দেখা গেছে, চাল, ডাল, ভোজ্যতেল, আটা, চিনি, ডিমসহ অন্যান্য নিত্যপণ্যেও দাম স্থিতিশীল থাকলেও সবজির বাজারে স্বস্তি রয়েছে। গ্রীষ্মকালীন সবজি উঠায় চাপ কমেছে শীতকালীনটির। সবজির বাজারে দেখা যায়, বেগুন (কালো) ৩০ টাকা (সাদা) ৩৫ টাকা, করলা ৪০ টাকা, ঢেঁড়শ ৪০ টাকা, টমেটো ৩০ টাকা, পটল ৪০ টাকা, চিচিঙ্গা ৩০ টাকা, সজনে ডাটা ৭০ টাকা, শিম ৪০ টাকা, পেঁপে ৩০ টাকা এবং শসা ৪০ টাকা দরে বিক্রি হচ্ছে।

Tagged

Leave a Reply