আদা'র যত কার্যকরী গুণ ও উপকারিতা khulna tv

আদা’র যত কার্যকরী গুণ ও উপকারিতা!

স্বাস্থ ও চিকিৎসা

আদা’র যত কার্যকরী গুণ ও উপকারিতা!

আপনার খুব কাছেই থাকে এ জিনিসটি। এর যে কতগুণ তা বলে শেষ করার নয়। আদা কুচি বা আদা বাটা আমরা সাধারণত খাবারের স্বাদ বাড়ানোর কাজেই ব্যবহার করে থাকি। কিন্তু আপনি জানেন কি, আদা খাবারে স্বাদ বাড়ানোর পাশাপাশি আমাদের দেহের সুস্থতার জন্য বিশেষভাবে উপযোগী।

এছাড়াও কাঁচা আদা খাওয়ার রয়েছে দারুণ সব উপকারিতা। চলুন তবে আজকে জেনে নেয়া যাক সাধারণ আদার দারুণ সব উপকারিতা সম্পর্কে।

১. এটা রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ায়। সাধারণ ঠান্ডা জ্বরে অনেক উপকারী। কারণ আদাতে রয়েছে সেসকুইটারপেনস্ নামে একটি উপাদান। যেটি সাধারণ ঠান্ডা ও ফ্লু রোধে কার্যকরী। খেতে একেবারেই ইচ্ছে হচ্ছে না? অসুস্থ বোধ করছেন খাবার দেখলেই? কোনো সমস্যাই নয়। খাওয়ার আগে ১ চা চামচ তাজা আদা কুচি খেয়ে নিন। মুখের রুচি ফিরে আসবে।

২. আথ্রাইটিস ব্যথা নিরাময় করে। বয়স্কদের বিভিন্ন জয়েন্টে ব্যথা, আথ্রাইটিসের ব্যথা নিরাময়ে আদা অনেক উপকারী। যাদের হাঁটুতে ব্যথা আছে সেটা উপশমেও কার্যকরী। আথ্রাইটিস ও বাতের ব্যথা নিরাময়ে আদা আপনার কাছের বন্ধু। হাতে পায়ের জয়েন্টে ব্যথা হলে সাহায্য নিতে পারেন আদার তেলের। খানিকটা অলিভ অয়েলে আদা ছেঁচে নিয়ে ফুটিয়ে নিন ৫ মিনিট। ঠাণ্ডা হলে ছেঁকে এই তেল দিয়ে ম্যাসাজ করুন হাতে পায়ের জয়েন্টে। আদার অ্যান্টিইনফ্লেমেটরি উপাদান দূর করে দেবে ব্যথা।

৩. পেশীতে ব্যথা উপশম করে ব্যায়ামের আগে আদা বা আদা চা খেতে পারেন। মাংসপেশীতে ব্যথা থাকলে বা যারা দৌড়াদৌড়ি করেন, বিভিন্ন খেলাধূলা করেন তারা নিয়মিত আদা খেতে পারেন।

৪. পেটে গ্যাস প্রতিরোধ করে । প্রতিদিন মাত্র ১ ইঞ্চি পরিমানের আদা কুচি খাওয়া অভ্যাস সাইনাসের সমস্যা প্রতিরোধে সহায়তা করে।

পেটে গ্যাস ও বায়ু জমাতে আপনি অস্বস্তিতে পড়তে পারেন। কিন্ত আদাতে রয়েছে সুন্দর সমাধান। আদা কার্মিনেটিভ হার্ব হিসেবে পরিচিত যা অতিরিক্ত গ্যাস থেকে মুক্তি দেয়। আদাতে জিনজিবেইন নামে একটি এনজাইম আছে যা প্রোটিনকে ভেঙ্গে দেয়।

৫. পিরিয়ডের ব্যথা দূর করে মেয়েদের প্রতিমাসের বিশেষ সময়টাতে আদা সেবন খুব কাজে দেবে। এমনকি অপারেশন পরবর্তী দিনগুলোতেও আদা খুব উপকারে আসে। বমি বমি ভাব হচ্ছে? কিংবা মাথা ঘুরানো? একটুখানি আদা স্লাইস করে লবণ দিয়ে চিবিয়ে খেয়ে নিন। দেখবেন বমি ভাব একেবারেই কেটে গিয়েছে।

৬. মাইগ্রেনের ব্যথার বিরুদ্ধে যুদ্ধ করে। মাইগ্রেনের অসহ্য ব্যথাতে আদা মহৌষধের মতো কার্যকরী। মাইগ্রেনের অতি পরিচিত ঔষধ সুমাত্রিপ্টান এর মতো উপকারী আদা। বুকে সর্দি কফ জমে গিয়েছে? নিঃশ্বাস টানতে সমস্যা হচ্ছে? ২ কাপ পানিতে আদা কুচি দিয়ে ফুটিয়ে নিন। পানি যখন অর্ধেক হয়ে আসবে জ্বাল হয়ে তখন ছেঁকে নামিয়ে ১ টেবিল চামচ মধু মিশিয়ে পান করে ফেলুন। বেশ আরাম পাবেন। সর্দি কফের সমস্যা না যাওয়া পর্যন্ত এই আদা চা পান করে চলুন।

৭. আপনার স্মৃতি শক্তি অক্ষুণ্ন রাখে। হজমে সমস্যার কারণে পেতে ব্যথা হলে আদা কুচি খেয়ে নিন। আদা পেতে গ্যাসের সমস্যা থেকেও মুক্তি দিতে বেশ কার্যকরী। খাবারের পুষ্টি দেহে সঠিকভাবে শোষণ করার ক্ষমতা বাড়ায় আদা। তাই প্রতিদিন খুব সামান্য পরিমাণে হলেও আদা খাওয়া অভ্যাস করা উচিত সকলের।

স্টাফ রিপোর্ট : সাব্বির হোসেন (খুলনা টিভি)

 

Tagged

Leave a Reply